চাঁদপুর। বুধবার ২৬ অক্টোবর ২০১৬। ১১ কার্তিক ১৪২৩। ২৪ মহরম ১৪৩৮
jibon dip

সর্বশেষ খবর :

  • -
বিষমুক্ত শাক সবজি এখন সময়ের চাহিদা
মোঃ নোয়াখেরুল ইসলাম
কৃষিকণ্ঠ প্রতিবেদক
২৬ অক্টোবর, ২০১৬ ০০:০০:০০
প্রিন্টঅ-অ+

চাঁদপুরের কৃষি সমপ্রসারণ অধিদপ্তরের জেলা প্রশিক্ষণ কর্মকর্তা মোঃ নোয়াখেরুল ইসলাম বলেন, বিষমুক্ত শাকসবজি এখন সময়ের চাহিদা। প্রতিদিন সুস্থ থাকার জন্যে আমাদের দৈনিক গড়ে ২৫০ গ্রাম শাক সবজি খাওয়ার কথা। কিন্ত আমরা অসচেতনতার কারণে খেতে পারছিনা। এখন সময় এসেছে আমাদের প্রত্যেকের নিজ উদ্যোগে বৈজ্ঞানিক প্রযুক্তি ব্যবহার করে স্বাস্থ্য সম্মত সবজি উৎপাদন করা। তিনি আরো বলেন, বন্যা ও জলবদ্ধপ্রবণ এলাকায় পরিবর্তন অভিযানের কৌশল হিসেবে ভাসমান সবজি চাষে কৃষক-কৃষাণীদের প্রশিক্ষণ দেয়া হচ্ছে। এতে কৃষকরা প্রশিক্ষণলব্দ জ্ঞান কাজে লাগিয়ে আর্থ সামাজিক উন্নয়নে স্বাবলম্বী হতে পারবে। তিনি কৃষকদের প্রতি গুরুত্বারোপ করে জৈব প্রযুক্তি ব্যবহার করে স্বাস্থ্য সম্মত বিষমুক্ত শাকসবজি উৎপাদন করতে অনুরোধ জানান।

শাহমাহমুদপুর ইউনিয়নের ঘোষের হাট বস্নকে গত বুধবার দুপুরে কৃষি প্রযুক্তি ব্যবহার ও সবজি চাষীদের ফসল প্রদর্শনী মাঠ দিবসে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।

কুমারডুগী বস্নকের উপ-কৃষি সহকারী অফিসার মোহাম্মদ মনিরুজ্জামানের পরিচালনায় বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন চাঁদপুর কৃষি সমপ্রসারণ অধিদপ্তরের অতিরিক্ত জেলা উপ-পরিচালক (শস্য) খন্দকার মাহফুজুল হক, চাঁদপুর সদর উপজেলা কৃষি অফিসার দিল আতিয়া পারভীন প্রমুখ।

হেরার আলো
বাণী চিরন্তন
আল-হাদিস

২৬-সূরা শু’আরা’

২২৭ আয়াত, ১১ রুকু, ‘মক্কী’

পরম করুণাময় ও অসীম দয়ালু  আল্লাহর নামে শুরু করছি।



২৪। মূসা বলিল, ‘তিনি আকাশম-লী ও পৃথিবী এবং উহাদের মধ্যবর্তী সমস্ত কিছুর প্রতিপালক, যদি তোমরা নিশ্চিত বিশ্বাসী হও।’

২৫। ফিতর ‘আগুন তাহার পরিষদবর্গকে লক্ষ্য করিয়া বলিল, ‘তোমরা শুনিতেছ তো!’

দয়া করে এই অংশটুকু হেফাজত করুন


পরিশ্রমী লোকের নিকট সবচেয়ে সুখপ্রদ জিনিস হচ্ছে ঘুম।       

-জন বুলিয়ান।


ধর্মার্থে প্রাণ উৎসর্গকারী শহীদের রক্ত অপেক্ষা বিদ্বান ব্যক্তির কলমের কালি অধিক পবিত্র।


ফটো গ্যালারি
করোনা পরিস্থিতি
বাংলাদেশ বিশ্ব
আক্রান্ত ৭,৫১,৬৫৯ ১৬,৮০,১৩,৪১৫
সুস্থ ৭,৩২,৮১০ ১৪,৯৩,৫৬,৭৪৮
মৃত্যু ১২,৪৪১ ৩৪,৮৮,২৩৭
দেশ ২০০ ২১৩
সূত্র: আইইডিসিআর ও বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা।
আজকের পাঠকসংখ্যা
৪৭৩২২১৩
পুরোন সংখ্যা