চাঁদপুর, রবিবার ২১ জুন ২০১৫ | ৭ আষাঢ় ১৪২২ | ৩ রমজান ১৪৩৬
jibon dip

সর্বশেষ খবর :

  • -
বর্ষার ফল পেয়ারা
কৃষি কণ্ঠ রিপোর্ট
২১ জুন, ২০১৫ ০০:০০:০০
প্রিন্টঅ-অ+


আম-কাঁঠাল মৌসুম আমাদের দেশে অনেকটা টেস্ট ক্রিকেটের মতোই লম্বা। গ্রীষ্মের ফল হলেও বর্ষা পেরিয়ে শরৎ পর্যন্ত তার বিস্তরণ। সে তুলনায় অন্যান্য মৌসুমী ফলের অবস্থা স্বল্প দৈর্ঘ্য টি-টোয়েন্টির মতোই। এখন চলছে স্বল্প মেয়াদি পেয়ারার মৌসুম। দেশে বর্র্ষার ফলের মধ্যে পেয়ারা জনপ্রিয়তা ও উৎপাদনের দিক থেকে শীর্ষে।



চাঁদপুরের ফলের দোকানগুলোতে তো বটেই ঝুঁড়িভরা ডাসা পেয়ারা নিয়ে বিক্রেতারা বসে গেছেন স্কুল-কলেজের সামনে, অফিসপাড়ায়, ফুটপাতে, পাড়া-মহল্লায়র গলির মোড়ে। পেয়ারার এখন ভরা মৌসুম। দামও বেশ কমে এসেছে। মোটামুটি ৪০-৫০টাকায় এখন পাওয়া যায় এক কেজি। আরও মাস খানেক থাকবে পর্যাপ্ত সরবরাহ।



গ্রামে-মফস্বলে বাড়ির উঠানে বা আশেপাশে পেয়ারা গাছ খুব সাধারণ দৃশ্য। এখন তো আরও সুবিধা। শহরেও বাড়ির ছাদে বড় আকারের টবে বা ড্রামে দিব্যি পেয়ারা লাগানো যায়। হাইব্রিড জাতের ছোটখাটো এসব গাছে ফলনও কম নয়। অথচ শুনতে বেশ অবাকই মনে হবে যে, দেশের সর্বত্রই সহজলভ্য অতিচেনা এই গাছটি আমাদের দেশে বহিরাগত। এটি আমাদের নিজস্ব উদ্ভিদ নয়। উদ্ভিদ বিজ্ঞানীদের ধারণা আমেরিকার উষ্ণমণ্ডলীয় দেশগুলো পেয়ারার আদি জন্মস্থান। কৃষিবিদ মৃত্যুঞ্জয় রায় তাঁর বাংলার বিচিত্র ফল বইতে উল্লেখ করেছেন, মেক্সিকো, পেরু হয়ে বিভিন্ন দেশ ঘুরে দক্ষিণ এশিয়ার দেশগুলোতে এসেছে পেয়ারা। এখন উৎপাদনকারী প্রধান দেশগুলোর মধ্যে বাংলাদেশসহ রয়েছে ভারত, শ্রীলঙ্কা, মিয়ানমার, থাইল্যাণ্ড, মালয়েশিয়া, হাওয়াই দ্বীপপুঞ্জ, কিউবা, মেক্সিকো ও ব্রাজিল। বাংলাদেশ কৃষি সমপ্রসারণ অধিদপ্তরের হিসাব অনুপাতে, দেশে এখন ১০ হাজার হেক্টরের বেশি জমিতে বাণিজ্যিক ভিত্তিতে পেয়ারার চাষ হচ্ছে। বার্ষিক উৎপাদন ছাড়িয়ে গেছে ৫০ হাজার মেট্রিক টন। বাণিজ্যিক ভিত্তিতে সবচেয়ে বেশি পেয়ারা উৎপন্ন হয় স্বরূপকাঠি, বরিশাল, ঝালকাঠি, পিরোজপুর ও চট্টগ্রাম এলাকায়। চাষ লাভজনক হওয়ায় ক্রমেই এর চাষের বিস্তার ঘটেছে। নরসিংদী, গাজীপুর, খুলনা, কুমিল্লা ও পাবনার ঈশ্বরদী এলাকায় অনেক বাণিজ্যিক বাগান গড়ে উঠেছে।



পেয়ারার গুণকীর্তন নতুন করে আর কী করার আছে। একদা পেয়ারা ভক্ষণে উৎসাহ দিতো তার তুলনা করা হতো আপেলের সঙ্গে। দামে সস্তা অথচ আপেলের চেয়েও পেয়ারার পুষ্টিমান অধিক_এমন বলা হতো।



 


খবরটি সর্বমোট 5 বার পড়া হয়েছে
হেরার আলো
বাণী চিরন্তন
আল-হাদিস

২০-সূরা : তা-হা

১৩৫ আয়াত, ৮ রুকু, মক্কী

পরম করুণাময় ও অসীম দয়ালু  আল্লাহ্র নামে শুরু করছ।ি



১। তা-হা, ২। তুমি ক্লশে পাইবে এইজন্য আমি তোমার প্রতি কুরআন অবর্তীণ করি নাই, ৩। বরং যে ভয় করে কবেল তাহার উপদর্শোথ।ে

দয়া করে এই অংশটুকু হফোজত করুন

 


বড়দের সম্মান কর, ছোটরা তোমাকে সম্মান করবে।

-হযরত আলী (রাঃ)।



 


নারী-পুরুষের যমজ অর্ধাঙ্গিণী।

  - হযরত মুহাম্মদ (সাঃ)

 


ফটো গ্যালারি
করোনা পরিস্থিতি
বাংলাদেশ বিশ্ব
আক্রান্ত ৭,৫১,৬৫৯ ১৬,৮০,১৩,৪১৫
সুস্থ ৭,৩২,৮১০ ১৪,৯৩,৫৬,৭৪৮
মৃত্যু ১২,৪৪১ ৩৪,৮৮,২৩৭
দেশ ২০০ ২১৩
সূত্র: আইইডিসিআর ও বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা।
আজকের পাঠকসংখ্যা
২৩১০৯১৬
পুরোন সংখ্যা